ঢাকা, , ১১ এপ্রিল, ২০২১

থাইল্যান্ডে বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা কাপ- ২০২১ ফুটবল টুর্নামেন্ট শুরু

টাইমসনিউজটোয়েন্টিফোর.কম

Sunday,07 March 21 11:51:56

মোঃ জুয়েল রানাঃ- মার্চ মাস মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর মাস। স্বাধীনতার চেতনা ও মূল্যবোধকে প্রবাসি বাঙ্গালীদের মাঝে তুলে ধরা ও স্বাধীনতার এ মাসটিকে আরো স্মরণীয় করে রাখতে পুরো মাসব্যাপী বেশ কয়েকটি উদ্যােগ হাতে নিয়েছে থাইল্যান্ডে বাঙ্গালীদের একমাত্র রেজিস্ট্রিকৃত সামাজিক সংগঠন থাই-বাংলাদেশি কমিউনিটি পাতায়া। তারি ধারাবাহিকতায় গত ০২/০৩/২০২১ ইং রোজ মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা কাপ ২০২১ এর শুভ উদ্ভোধন করেন কমিউনিটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি জনাব জাহাঙ্গীর হোসেন। টুর্নামেন্টটিতে পাতায়াস্থ বাঙ্গালিদের পদ্মা,মেঘনা ও যমুনা নামে মোট তিনটি দল অংশগ্রহণ করেন।

                                 a919bbbd-ef5f-4c34-bdd1-bb5f17522410.jpg

এছাড়াও উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা কাপ এর স্পন্সর লিয়া দীপ্ত গ্রুপের ম্যানেজিং ডিরেক্টর লিটন শিকদার, কমিউনিটির বর্তমান সভাপতি আব্দুল আলিম মোল্লা ও সাধারণ সম্পাদক শামসুজ্জামান শামিম সহ আরো অনেকে। উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী লিটন শিকদার (স্পন্সর) থাই-বাংলদেশি কমিউনিটির ব্যানারে করোনকালীন সময়ে ক্ষতিগ্রস্ত বাঙ্গালি ও থাই নাগরিকদের মাঝে ২৫০০ প্যাকেট খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা সহ ভবিষ্যতেও কমিউনিটির মাধ্যমে বাঙ্গালিদের পাশে থাকার ঘোষনা দেন।উল্লেখ্য গত মহান ২১ শে ফেব্রুয়ারির অনুষ্ঠানেও লিয়া দীপ্ত গ্রুপ, সুমনা গ্রুপ ও ইউনিক রিজেন্সি থাই-বাংলাদেশি কমিউনিটির স্পন্সর হিসেবে ছিলেন।

                                 4abf92fd-1a16-4b18-83eb-f5f8f102a5a4.jpg

পরে রাত নয়টায় পাতায়া প্যালাডিয়াম ফুটবল স্টেডিয়ামে পদ্মা ও যমুনা দলের অংশগ্রহণে উদ্ভোধনী ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়।টান টান উত্তেজনাপূর্ন ম্যাচ শেষে যমুনা দল ০২-০১ গোলে জয়লাভ করে।পদ্মা, মেঘনা ও যমুনা দলের মধ্যে মোট ১৩ টি ম্যাচ শেষে ২৩ মার্চ রোজ মঙ্গলবার রাত নয়টায় ফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।ফুটবল টুর্নামেন্টটি ঘিরে পাতায়াস্থ বাঙ্গালীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা ও উৎসবমূখর পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে।

                                80b61580-0091-4f9c-95a3-bb33d1992ea3.jpg

 

খেলা উপভোগ করতে আসা কয়েকজন বাঙ্গালী দর্শকের সাথে কথা বললে তারা বলেন দীর্ঘ মাহামরি করোনার ফলে আমরা বাঙ্গালিরা মানুষিকভাবে চরম হতাশায় ভুগছি। এসময়ে আমাদের মানুষিক প্রশান্তি দেয়ার লক্ষ্যে থাই-বাংলাদেশি কমিউনিটি পাতায়া ধারাবাহিভাবে বিভিন্ন সামাজিক ও জাতীয় অনুষ্ঠান করে যাচ্ছেন যার মধ্যে এ ফুটবল টুর্নামেন্ট অন্যতম। তারা আরো জানান গত ২০-২৫ বছর ধরে আমরা পাতায়া বসবাস করছি কিন্তু এত সুন্দর এবং ব্যায়বহুল ফুটবল টুর্নামেন্ট আমরা অতীতে কখনো দেখিনি!পরে তাঁরা স্বাধীনতার মাসে এত সুন্দর একটি ফুটবল টুর্নামেন্ট আয়াজন করায় থাই-বাংলাদেশি কমিউনিটি পাতায়া ও লিয়া দীপ্ত গ্রুপকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

পাঠকের মন্তব্য